কম দামে ভালো ট্যাব ২০২২

 


কম দামে ভালো ট্যাব ২০২২


ট্যাব বর্তমান বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয় একটি ডিভাইস। ট্যাব পরিচালিত হয় অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস বা উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে। ট্যাব ওজনে হালকা এবং আকারে ছোট বলে সহজেই বহন করা যায়। বিভিন্ন মিটিং, ভ্রমণ, জরুরি কনফারেন্স সকল কাজের ক্ষেত্রে ট্যাব অনেকটা কম্পিউটারের মত সুবিধা প্রদান করে। 

সাথে ট্যাবলেটে উচ্চ রেজুলেশনের ক্যামেরা থাকে যা দিয়ে অসাধারণ ছবি তোলা এবং ভিডিও করা যায়। বাংলাদেশের বাজারে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যের ট্যাব পাওয়া যায় যেগুলো জানা থাকলে বাজেট এবং চাহিদা অনুযায়ী ভাল মানের ট্যাব কেনা সম্ভব। আর বাংলাদেশে এগুলো ট্যাবলেট বা  ট্যাবলেট পিসি বা মোবাইল ট্যাব নামেও পরিচিত।

বাংলাদেশে ট্যাব এর দাম ৭,০০০ টাকা থেকে শুরু যেগুলো দিয়ে ধরণের কাজ করা যায় এবং এগুলোতে ওয়াইফাই কানেকশানসহ ১০ ইঞ্চির স্ক্রিন, সিম ব্যবহারের সুবিধা রয়েছে। তবে ভাল মানের ট্যাব এর দাম নির্ভর করে এর স্ক্রিন কোয়ালিটি, ব্র্যান্ড এবং উন্নত হার্ডওয়ারের উপর। আর বাচ্চাদের জন্য কিছু ট্যাবলেট পাওয়া যায় যেগুলো কিডস ট্যাবলেট নাম পরিচিত এবং এগুলো দামে অনেক সস্তা। 


 1.  Plum Optimax 2


আপনারা যারা অল্প দামের মধ্যে একটি ট্যাব কিনতে চাচ্ছেন তারা Plum Optimax 2 মডেলটি দেখতে পারেন। কমদামের মধ্যে এই ট্যাবটিতে ভালো কনফিগারেশন দেওয়া হয়েছে। এটির মেমোরি ৮ জিবি এবং র‍্যাম ১ জিবি দেওয়া আছে। এটিতে ওয়াইফাই এবং ব্লুটুথ সুবিধাও পাবেন।

ট্যাবটির বডি কালার ব্লাক, সিলভার, পিঙ্ক, গোল্ড এবং রোজ গোল্ড, এই পাঁচটি কালার পাবেন। কম বাজেটের মধ্যে এটি ভালো একটি ট্যাব।

Plum Optimax 2 ট্যাবটির ফিচার :

  • ব্র্যান্ড – পাম
  • নেটওয়ার্ক টাইপ – নো সেলুলার কানেক্টিভিটি (ট্যাবটিতে কোন সিম সাপোর্ট করে না)
  • বডি ডাইমেনশন – ১৯১ X ১০৯.৭ X ১১.৫ মি.মি.
  • বডি ওয়েট – ২৭০ গ্রাম (ব্যাটারিসহ)
  • ৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে (ডিসপ্লে রেজুলেশন ৬০০x১০২৪ পিক্সেল)
  • অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম (ভার্সন ৬.০, মারসম্যালো)
  • সিপিইউ – ডুয়েল কোর 1.2 GHz, করটেক্স-এ৭
  • ইন্টার্নাল মেমোরি 8 জিবি, এক্সটার্নাল মেমোরি – মাইক্রো এসডি, আপটু ৩২ জিবি, র‍্যাম-১ জিবি
  • প্রাইমারি ক্যামেরা ৫.০ মেগাপিক্সেল এবং সেকেন্ডারি ক্যামেরা ২.০ মেগাপিক্সেল
  • এফএম রেডিও, ইউএসবি এবং ওটিজি সাপোর্টড
  • ২৪০০ অ্যাম্পিয়ার Li-Polymer ব্যাটারি
  • ব্যাটারি স্টান্ডবাই ১৭০ ঘন্টা এবং টকটাইম ১২ ঘন্টা
  • মূল্য 6,300


2। BLU Touchbook M7



মোবাইলের মতো ট্যাব কেনার ক্ষেত্রেও ব্রান্ডকে গুরুত্ব দেওয়া হয়। অল্প বাজেট থাকলেও যে কোন ডিভাইস ব্রান্ডের কেনাই ভালো। তাহলে ডিভাইস এর কনফিগারেশন ভালো করা যায় এবং ওয়ারেন্টি পাওয়া যায়। তাই আপনারা যারা কম দামের মধ্যে একটি ভালো ট্যাব কেনার কথা ভাবছেন তারা BLU Touchbook M7 ট্যাবটি কিনতে পারেন। এটি ডুয়েল সিম বিশিষ্ট একটি ট্যাব।

আপনি মোবাইল হিসেবেও এটি ব্যবহার করতে পারবেন। এটিতে মেমোরি ৮ জিবি এবং র‍্যাম ১ জিবি দেওয়া আছে। এর ব্যাটারি নন রিমুভাল। এই ট্যাবটির আপনি ব্লাক এবং হোয়াইট এই দুইটি কালার পাবেন।

BLU Touchbook M7 ট্যাবটির ফিচার :
  • ব্র্যান্ড – বিএলইউ
  • নেটওয়ার্ক টাইপ – জি.এস.এম/এইচ.এস.পি.এ
  • বডি ডাইমেনশন – ১৮৭.৭X১০৭.৫X৯.৭ মি.মি.
  • বডি ওয়েট – ২৬৫ গ্রাম (ব্যাটারিসহ)
  • ডুয়েল সিম সাপোর্টেড (টুজি এবং থ্রিজি)
  • ৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে (মাল্টি টাচ ডিসপ্লে)
  • অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম (ভার্সন ৬.০, মারসম্যালো)
  • সিপিইউ – ডুয়েল কোর 1.3 GHz, করটেক্স-এ৭
  • ইন্টার্নাল মেমোরি ৮ জিবি, এক্সটার্নাল মেমোরি – মাইক্রো এসডি, আপটু ৬৪ জিবি, র‍্যাম-১ জিবি
  • প্রাইমারি ক্যামেরা ৩.১৫ মেগাপিক্সেল এবং সেকেন্ডারি ক্যামেরা ২.০ মেগাপিক্সেল
  • এফএম রেডিও, জিপিএস, ইউএসবি ২.০ এবং ওটিজি সাপোর্টড
  • ২৮০০ অ্যাম্পিয়ার Li-Po নন রিমুভাল ব্যাটারি
  • ব্যাটারি স্টান্ডবাই ১৯০ ঘন্টা এবং টকটাইম ৯ ঘন্টা
  • price    7,200

3। LENOVO TAB 7 ESSENTIAL


যে কোন ডিভাইস কেনার ক্ষেত্রে অনেকে লেনোভো ব্রান্ডকে আগে বেছে নেন। লেনোভো তাদের অন্যান্য পণ্যের মতো ট্যাবও কম দামে দিচ্ছে। আপনারা যারা লেনোভো ব্রান্ডকে পছন্দ করেন এবং কম দামের মধ্যে একটি ভালো ট্যাব কিনতে চাচ্ছেন তারা LENOVO TAB 7 ESSENTIAL ট্যাবটি কিনতে পারেন।

এই ট্যাবটিতে ১৬ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি দেওয়া আছে। ওয়াইফাই, ব্লুটুথ সুবিধা পাবেন কিন্তু কোন সিম ব্যবহার করা যাবে না। যাদের বাজেট ১০ হাজার টাকার মধ্যে তারা অনায়াসে এই ট্যাবটি কিনতে পারবেন। এই ট্যাবটির বডি কালার ব্ল্যাক। 

LENOVO TAB 7 ESSENTIAL ট্যাবটির ফিচার :

  • ব্র্যান্ড – লেনোভো
  • নেটওয়ার্ক টাইপ – নো সেলুলার কানেক্টিভিটি (ট্যাবটিতে কোন সিম সাপোর্ট করে না)
  • বডি ডাইমেনশন – ১৯৪.৮ X ১০২.০ X ৮.৮ মি.মি.
  • বডি ওয়েট – ২৫৪ গ্রাম (ব্যাটারিসহ)
  • ৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে (মাল্টিটাচ ডিসপ্লে যার রেজুলেশন ৬০০x১০২৪ পিক্সেল)
  • অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম (ভার্সন ৭.০, নৌগাট)
  • সিপিইউ – কুয়াড কোর 1.3 GHz
  • ইন্টার্নাল মেমোরি ১৬ জিবি, এক্সটার্নাল মেমোরি – মাইক্রো এসডি, আপটু ১২৮ জিবি এবং র‍্যাম-১ জিবি
  • প্রাইমারি ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল এবং সেকেন্ডারি ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল
  • ভাইব্রেশান, জিপিএস, ব্লুটুথ ৪.২, মাইক্রো ইউএসবি ২.০ এবং ওটিজি সাপোর্টড
  • ওয়াই-ফাই এবং হটস্পট সাপোর্টড
  • ৩৫০০ অ্যাম্পিয়ার Li-Po নন রিমুভাল ব্যাটারি


4। BLU Touchbook M7 PRO


আপনারা যারা কম দামের মধ্যে একটি ভালো ট্যাব কিনতে চাচ্ছেন তারা BLU Touchbook M7 PRO ট্যাবটি কিনতে পারেন। এটি ভাল কনফিগারেশনের একটি ট্যাব। এটি ডুয়েল সিম বিশিষ্ট। সিম ব্যবহার করার মাধ্যমে মোবাইলের কাজও করতে পারবেন। আপনার বাজেট যদি ১০ হাজার টাকার মধ্যে হয় তাহলে BLU Touchbook M7 PRO ট্যাবটি আপনার জন্য বেস্ট হবে।

ট্যাবটিতে ভালো স্পিডের ওয়াইফাই, ব্লুটুথ এবং এফএম রেডিও সুবিধা পাবেন। ব্যাটারি নন রইমুভাল এবং ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ৩০০০ অ্যাম্পিয়ার, যার কারণে আপনি ব্যাটারি ব্যাকআপ ভালো পাবেন। এইট ট্যাবটির ব্ল্যাক এবং গোল্ড এই দুইটি কালার পাবেন। 

BLU Touchbook M7 PRO ট্যাবটির ফিচার ডিটেইলস:

  • ব্র্যান্ড – বিএলইউ
  • নেটওয়ার্ক টাইপ – জি.এস.এম/এইচ.এস.পি.এ
  • বডি ডাইমেনশন – ১৮৮.৪ X ১০৯.২ X ৯.৪ মি.মি.
  • বডি ওয়েট – ২৭৫ গ্রাম (ব্যাটারিসহ)
  • ডুয়েল সিম সাপোর্টেড (টুজি এবং থ্রিজি)
  • ৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে (ডিসপ্লে রেজুলেশন ৬০০x১০২৪ পিক্সেল)
  • অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম (ভার্সন ৭.০, নৌগাট)
  • সিপিইউ – কুয়াড কোর 1.3 GHz, করটেক্স-এ৭
  • ইন্টার্নাল মেমোরি ৮ জিবি, এক্সটার্নাল মেমোরি – মাইক্রো এসডি, আপটু ৬৪ জিবি, র‍্যাম-১ জিবি
  • প্রাইমারি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল এবং সেকেন্ডারি ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল
  • এফএম রেডিও, জিপিএস, মাইক্রো ইউএসবি ২.০ এবং ওটিজি সাপোর্টড
  • ডিরেক্ট ওয়াই-ফাই এবং হটস্পট সাপোর্টড
  • ৩০০০ অ্যাম্পিয়ার Li-Po নন রিমুভাল ব্যাটারি
  • ব্যাটারি স্টান্ডবাই ২০০ ঘন্টা এবং টকটাইম ১০ ঘন্টা
  • দাম 10,000 taka

5। HUAWEI MEDIAPAD T8


যারা ১০ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে ভালো ব্রান্ডের একটি ট্যাব কিনবেন বলে ভাবছেন তারা নিশ্চিন্তে HUAWEI MEDIAPAD T8 মডেলের ট্যাবটি কিনতে পারেন। আকর্ষণীয় ডিজাইনের এই ট্যাবটিতে আপনি প্রয়োজনীয় সকল ফিচার পাবেন। এর ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ৫১০০ এম্পিয়ার হওয়ায় চার্জ দেয়া নিয়ে খুব বেশি চিন্তা করতে হয় না।

ন্যানো সিম ব্যবহার করতে পারবেন এবং ফোরজি নেটওয়ার্ক সুবিধাও পাবেন। এই ট্যাবটি অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের এবং র‍্যাম পাবেন ২ জিবি। HUAWEI MEDIAPAD T8 মডেলের ট্যাবটি ডিপ সি ব্লু কালার পাবেন। 

HUAWEI MEDIAPAD T8 ট্যাবটির ফিচার :

  • ব্র্যান্ড – হুয়াওয়েই
  • নেটওয়ার্ক টাইপ – জিএসএম/এইচএসপিএ/এলটিই
  • বডি ডাইমেনশন – ১৯৯.৭ X ১২১.১ X ৮.৬ মি.মি.
  • বডি ওয়েট – ৩১০ গ্রাম (ব্যাটারিসহ)
  • ডুয়েল সিম সাপোর্টেড (টুজি, থ্রিজি এবং ফোরজি)
  • ৮ ইঞ্চি ডিসপ্লে (ডিসপ্লে রেজুলেশন ৮০০x১২৮০ পিক্সেল)
  • অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম (ভার্সন ১০)
  • সিপিইউ – কুয়াড কোর 1.3 GHz, করটেক্স-এ৭
  • ইন্টার্নাল মেমোরি ১৬/৩২ জিবি, এক্সটার্নাল মেমোরি – মাইক্রো এসডি, আপটু ১২৮ জিবি, র‍্যাম-২ জিবি
  • প্রাইমারি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল এবং সেকেন্ডারি ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল
  • এফএম রেডিও, জিপিএস, মাইক্রো ইউএসবি ২.০ এবং ওটিজি সাপোর্টড
  • ডিরেক্ট ওয়াই-ফাই এবং হটস্পট সাপোর্টড
  • ৫১০০ অ্যাম্পিয়ার Li-Po নন রিমুভাল ব্যাটারি
  • ব্যাটারি স্টান্ডবাই ২০০ ঘন্টা এবং টকটাইম ১০ ঘন্টা
  • price    9,200

6। Symphony Xplorer T7 Pro


ভালো ব্র্যান্ড এবং কম বাজেটের মধ্যে যারা একটি ট্যাব কিনতে চাচ্ছেন তারা Symphony Xplorer T7 Pro ট্যাবটি কিনতে পারেন। কমদামে সব সময় তো আর ভালো ব্রান্ডের ডিভাইস পাওয়া যায় না। সেক্ষেত্রে সিম্ফোনি তাদের অন্য সকল পণ্যের পাশাপাশি ট্যাবও অনেক কম দামে বাজারে ছেড়েছে।

আপনি চাইলে Symphony Xplorer T7 Pro  মডেলের ট্যাবটি আপনার সাধ্যের মধ্যে কিনতে পারবেন। এটিতে আপনি ডুয়েল সিমের সুবিধা পাবেন। ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ৩২০০ অ্যাম্পিয়ার। ব্যাটারি স্টান্ড বাই ৪০০ ঘণ্টা এবং ব্যাটারি টকটাইম ৪ ঘণ্টা দেওয়া আছে। এটির বডি ব্লাক কালার পাবেন। 

Symphony Xplorer T7 Pro ট্যাবটির ফিচার :
  • ব্র্যান্ড – সিম্ফোনি
  • নেটওয়ার্ক টাইপ – জি.এস.এম/এইচ.এস.পি.এ
  • বডি ডাইমেনশন – ১৮৭ X ১০৭ X ৯.৫ মি.মি.
  • বডি ওয়েট – ২৬৮ গ্রাম (ব্যাটারিসহ)
  • ডুয়েল সিম সাপোর্টেড (টুজি এবং থ্রিজি
  • ৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে (মাল্টি টাচ ডিসপ্লে)
  • অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম (ভার্সন ৪.৪.২, কিটক্যাট)
  • সিপিইউ – ডুয়েল কোর 1.3 GHz
  • ইন্টার্নাল মেমোরি ৮ জিবি, এক্সটার্নাল মেমোরি – মাইক্রো এসডি, আপটু ৩২ জিবি, র‍্যাম ১ জিবি
  • প্রাইমারি ক্যামেরা ২.০ মেগাপিক্সেল এবং সেকেন্ডারি ক্যামেরা ০.৩ মেগাপিক্সেল
  • এফএম রেডিও, ইউএসবি এবং ওটিজি সাপোর্টড
  • ৩২০০ অ্যাম্পিয়ার Li-Polymer ব্যাটারি
  • ব্যাটারি স্টান্ডবাই ৪০০ ঘন্টা এবং টকটাইম ৪ ঘন্টা
  • দাম 9,2000


অনুভব আমাদের শেষ কথা,

তাহলে বন্ধুরা, আপনারা যদি ১০ হাজার টাকার মধ্যে একটি ভালো ট্যাব কিনে নিতে চান, তাহলে ওপরে আমি রিভিউ (review) করা TAB গুলির থেকে যেকোনো একটি কিনেনিতে পারবেন। সব ট্যাব গুলো আপানার বাজেটের মধ্যে এবং তাদের features, functions, brand এবং build quality বেশ ভালোই।


আরো পড়ুন:

  1. আই ফোন সারা পৃথিবীতে বিখ্যাত কোনো 
  2. প্রসেসর কি 
  3. বাংলাদেশে dslr ক্যামেরার দাম 
  4. সফ্টওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং কি ?
  5. বিশ্বের সেরা 11টি জনপ্রিয় অনলাইন মোবাইল গেম
  6. নতুন গেমিং ল্যাপটপ 2022
  7. নতুন গেমিং পিসি 2022 |
  8. ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা দামের মধ্যে ভালো ফোন 
  9. কম্পিউটার ভাইরাস কি ? কম্পিউটারে ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায় কি ?
  10. 10000-এর নীচে সেরা ফোন |


0/পোস্ট এ কমেন্ট/Comments