সফটওয়্যার কি? সফটওয়্যার সম্পর্কে জানব? What is software? Know about software?

 সফটওয়্যার কি? সফটওয়্যার সম্পর্কে জানব?


 সফটওয়্যার কি?

ফটওয়্যার হল কম্পিউটার পরিচালনা এবং নির্দিষ্ট কাজ সম্পাদনের জন্য কিছু ইনস্ট্রাকশন (instruction), deta বা প্রোগ্রাম । সহজ ভাষায় সফটওয়্যার কম্পিউটারকে বলে দেয় যে কিভাবে কাজ করতে হবে। সফটওয়্যার কে আপনারা চোখে দেখতে পারবেন না এবং স্পর্শ করতে পারবেন না কারণ সফটওয়্যার বিভিন্ন কোড এবং  (computer language) দিয়ে তৈরি। কম্পিউটার, মোবাইল, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট ইত্যাদি ডিভাইসে চালিত  অ্যাপ্লিকেশন (application) স্ক্রিপ্ট (script) বা প্রোগ্রামের জন্য সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়।

সফটওয়্যার ছাড়া কিন্তু কম্পিউটার একেবারে অচল। একটি উদাহরণ দিয়ে আপনাদেরকে এ ব্যাপারটি বুঝিয়ে দিই ওয়েব ব্রাউজার (web browser) হল একটি এপ্লিকেশন সফটওয়্যার আর এই ওয়েব ব্রাউজার ছড়া কিন্তু আপনারা আমার এই আর্টিকেলটি পড়তে পারতেন না অর্থাৎ সফটওয়্যার ছাড়া আপনি web browser এ কোন কিছু সার্চ করতে , কোন তথ্য পড়তে বা ডাউনলোড করতে পারতেন না।

সফটওয়্যার এর সংজ্ঞা

Software কি আসলে বর্ণনা করে অনেক কঠিক একটি বিষয়। কারণ, এটাকে কম্পিউটারের হার্ডওয়্যার এর মতো একটি সফটওয়্যার যাকে দেখা যায় না বা অনুভাব করা যায় না। আসলে সফটওয়্যার হলো সম্পর্ন রূপে একটি virtual.

সফটওয়্যার হলো একটি সাধারন শব্দ, যার মাধ্যমে বিভিন্ন কম্পিউটার প্রোগ্রাম গুলোকে বর্ণনা করা হয়। আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপে যদি কোনো একটি কম্পিউটার এপ্লিকেশন বা প্রোগ্রাম ইনস্টল করেছেন, তবে সেটাকে software install করা বুঝায়।


প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কি?

programming language হলো এমন একটি কম্পিউটার ভাষা যেটা এক সাথে প্রণীত করে কিছু নির্দেশ তৈরি করে। যার ফলে আমরা কম্পিউটারে বিভিন্ন রকমের আউটপুট পেয়ে যায়।


সহজে ভাবে বললে, প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ হলো এমন কিছু কম্পিউটার ল্যাঙ্গুয়েজ যেগুলোর মাধ্যমে বিভিন্ন কম্পিউটার এপ্লিকেশন এবং সফটওয়্যার তৈরি করা হয়।


পিএইচপি কি?

এখানে বিভিন্ন ধরনের binary data, scripts, rules, keyword থাকে। এই codes ও scripts গুলোর মাধ্যমে প্রোগ্রাম লেখা হয়ে থাকে। এই লেখা গুলো কম্পিউটার অনেক সহজে বুঝতে পারে এবং নির্দেশ গুলো সম্পর্ন করে।


সফটওয়্যার কেন স্পর্শ করা যায় না বা দেখা যায় না?

যেকোনো ধরনের সফটওয়্যার আমরা কখনো চোখে দেখতে পায় না বা স্পর্শ করতে পারি না। এটার প্রধান কারণ হলো, যেকোনো সফটওয়্যার code ও computer language দ্বারা তৈরি করা হয়।

তাই এই ধরনের সফটওয়্যার গুলোর কোনো আকার থাকে না। এজন্য যে জিনিসের কোনো শারীরিক আকার বা চেহেরা থাকে না, সেটাকে কিভাবে চোখে দেখবেন বা হাতে স্পর্শ করবেন। 

তবে, কম্পিউটার সফটওয়্যার তৈরি করার সময় যে কোড ব্যবহার করা হয় সেগুলো বিশেষ প্রোগ্রমের সাহায্যে চোখে দেখা সম্ভব। এটা যদি দেখা সম্ভব না হতো তাহালে কখনো কম্পিউটার প্রোগ্রাম তৈরি করা সম্ভব হতো না।

সফটওয়্যার কত প্রকার...

বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার তৈরি করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের কাজের জন্য। আমরা যাতে সহজে বিভিন্ন ধরনের কাজ গুলো সহজে করতে পারি তার জন্য আলদা আলদা ধরনের সফটওয়্যার তৈরি করা হয়েছে।

আপনারা হয়তো প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠার পরে মোবাইল বা কম্পিউটারে বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করেন। যেমন- Facebook, Twitter, Instagram, WhatsApp, Messenger ইত্যাদি।


সফটওয়্যার মূলত দুই প্রকার ::

  1. সিস্টেম সফটওয়্যার (System Software)
  2. এপ্লিকেশন সসফটওয়্যার (Application Software)

সিস্টেম সফটওয়্যার কি ?

System Software হলো কম্পিউটারে এমন একটি প্রোগ্রাম যার মাধ্যমে কম্পিউটার হার্ডওয়্যার এবং ব্যবহারকারী এর মধ্যে ইন্টারফেস  তৈরি করে। এমন হতে পারে আপনি বিভিন্ন ভাষা বলতে ও বুঝতে পারেন। 


কিন্ত, কম্পিউটার এই ভাষা গুলো বুঝে না। কম্পিউটার সিস্টেম কেবল একটা মাত্র ভাষা বুঝে সেটা হলো Binary Language বা Binary codes. মনে করুন, আমি কম্পিউটারে ইংরেজা ভাষা লিখছি কিন্ত কম্পিউটার সেই ভাষা বুঝতে পারছেন না।


তাহালে এখন কি করা যাবে? এক্ষেত্রে প্রয়োজন হবে ইন্টারফেস এর। interface এর সধ্যমে আমাদের ভাষার দেওয়া নির্দেশনাবলী গুলোকে কম্পিউটার মেশিনে বুঝতে পারা ভাষাতে কনভার্ট করে দেয়। যার ফলে কম্পিউটার ভাষা গুলো বুঝে কাজ করতে পারে।


সিস্টেম সফটওয়্যার এর বিশেষ কাজ গুলো হলোঃ

সফটওয়্যার এর মাধ্যমে কম্পিউটারের বিভিন্ন হার্ডওয়্যার গুলোকে নিয়ন্ত্রণ করে। 

Operating system হলো সব থেকে জরুরি system software, যেটা প্রথমে কম্পিউটারে ইনস্টল করতে হয়।

একটি Operating system ছাড়া কম্পিউটার কখনো কাজ করতে পারে না।

এপ্লিকেশন সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যার এর মাঝে ইন্টারফেস বা মধ্যবর্তী হিসাবে কাজ করে।

ল্যাঙ্গুয়েজ প্রোসেসিং এর পক্ষে সিস্টেম সফটওয়্যার এর প্রয়োজন, এতে ইংরেজি ভাষাকে নির্দেশাবলী গুলোকে মেশিনের ভাষাতে বুঝাতে পারা ভাষাতে রুপান্তিত করে।

আপনি কম্পিউটারে যত গুলো এপ্লিকেশন ইনস্টল করবেন সেই সব গুলো system software নিয়ন্ত্রণ করে। আপনার কম্পিউটারে যদি সিস্টেম সফটওয়্যার না থাকে, তাহালে আপনি অন্য কোনো এপ্লিকেশন চালাতে পারবেন না।

কিভাবে সফটওয়্যার তৈরি করে?

একটি কম্পিউটার সফটওয়্যার বিভিন্ন ০ এবং ১ সংখ্যা দিয়ে তৈরি করা হয়। এই সংখ্যা গুলোকে বলা হয় binary codes. কম্পিউটার সিস্টেম গুলো কেবল এই binary codes গুলো দিয়ে তৈরি করা নির্দেশ গুলোকে বুঝতে পারে।

একজন ডেভেলপার যখন একটি সফটওয়্যার তৈরি করে তখন বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ(language)গুলো ব্যবহার করে। যারা এই প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ গুলো ব্যবহার করে একটি সফটওয়্যার তৈরি করে তাকে সফটওয়্যার ডেভেলপার বা প্রোগ্রামার বলে।

binary codes গুলো বুঝতে পারা অনেক কঠিন ব্যাপার। তাই একজন ডেভেলপার C, C++, PHP, JavaScript, Python ইত্যাদি ব্যবহার করে সফটওয়্যার তৈরি করে।

আপনারা যদি সফটওয়্যার তৈরির কাজ শিখতে চান, তাহালে software development এর কোর্স  করতে হবে। 


এপ্লিকেশন সফটওয়্যার কাকে বলে ?

যেসব সফটওয়্যার গুলো কেবল বিশেষ ধরণের একটি নির্দিষ্ট ও সিঙ্গেল (single) কাজ করার ক্ষেত্রে তৈরি করা হয়, সেই সফটওয়্যার গুলোকেই বলা হয় এপ্লিকেশন সফটওয়্যার।

এটাকে সাধারণ ভাবে, একটি program বা collection of programs বলা যেতে পারে, যেটাকে end user এর দ্বারা ব্যবহার করা হয়।

এমনিতে বলতে গেলে, এমন প্রত্যেক সফটওয়্যার যেগুলো একটি “system software” ও নয় এবং “programming software” ও নয়, একটি application software.

এপ্লিকেশন সফটওয়্যার এর উদাহরণ

  1. MS-office (excel, power point, word)
  2. Internet browser (Firefox, safari, chrome)
  3. Media player ( real player, KM player, Gom player)
  4. Paint
  5. Photoshop


আরো পড়ুন 

  1. কম্পিউটার ভাইরাস কি? কম্পিউটারে ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায় কি ? 
  2. ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা দামের মধ্যে ভালো ফোন |
  3. Google কীভাবে কাজ করে ? 
  4. 10000-এর নীচে সেরা ফোন ।
  5. টপ 3 সেরা গেম পিসি এর জন্য ।
  6. বিটকয়েন অর্থ কি? বিটকয়েন বলতে কি বুঝায় ? 
  7. কয়েকটি গেম অ্যান্ড্রয়েড গেম যা মিলিয়ন প্লাস ডাউনলোড 
  8. মোবাইল ফোন ব্যবহারের সুবিধা ও অসুবিধা গুলো কি 
  9. পৃথিবীর সবচেয়ে দামি ফোন 




0/পোস্ট এ কমেন্ট/Comments