অ্যাপল ম্যাকবুক প্রো ২০২১ – শক্তিশালী হার্ডওয়্যার, নতুন ডিজাইন, আরো অনেক কিছু | Apple MacBook Pro 2021 price in bd

New 14-inch MacBook Pro with a notch


 নতুন এম১ প্রো এবং এম১ ম্যাক্স চিপযুক্ত নতুন দুটি ম্যাকবুক প্রো প্রকাশ করেছে অ্যাপল। একটি ১৪ইঞ্চি স্ক্রিনের (মূলত ১৪.২ইঞ্চি) এবং অপরটি ১৬ ইঞ্চি। দুটির ডিজাইন দেখতে একই রকম। তবে আগের ম্যাকবুকের চেয়ে নতুন এই ম্যাকবুকের ডিজাইন আলাদা। এইবারের ম্যাকবুক প্রো এর ডিসপ্লেতে যুক্ত হয়েছে একটি নচ, যা দেখতে অনেকটা আইফোনের নচের মত।

চলুন প্রথমেই জেনে নিই ১৪ইঞ্চি স্ক্রিনের ম্যাকবুক প্রো সম্বন্ধে। স্ট্যান্ডার্ড থান্ডারবোল্ট পোর্টস এর পাশাপাশি উভয় নতুন ম্যাকবুক প্রো তে ফিরে এসেছে এইচডিএমআই পোর্ট ও এসডি কার্ড রিডার। এছাড়াও চার্জিং এর জন্য মেগসেফ ৩ কানেকটর যুক্ত হয়েছে নতুন ম্যাকবুক প্রো তে। ১৪ ইঞ্চি স্ক্রিনের নতুন ম্যাকবুক প্রো এর দাম ১,৯৯৯ ডলার থেকে শুরু।

১৪.২ইঞ্চির ১২০হার্জ প্রোমোশন মিনি এলইডি ডিসপ্লে থাকছে নতুন ম্যাকবুকে, যা লিকুইড রেটিনা প্রো এক্সডিআর নামে প্রোমোশন চালিয়ে আসছে অ্যাপল। আগের জেনারেশনের চেয়ে স্লিমার বেজেল থাকলেও যুক্ত হয়েছে আলোচনায় থাকা নচ।

নতুন নচ এর মধ্যে ১০৮০পি ওয়েবক্যাম রয়েছে। ১৪ইঞ্চির এই ম্যাকবুক এর স্ক্রিন রেজ্যুলেশন ৩০২৪x১৯৬৪, যা সর্বোচ্চ ১৬০০নিটস পর্যন্ত ব্রাইটনেস প্রদানে সক্ষম।

১৪ইঞ্চির ম্যাকবুক প্রো ব্যবহার করা যাবে অ্যাপল এর এম১ প্রো বা এম১ ম্যাক্স চিপ দ্বারা। দুইটি প্রসেসরই ১০টিই সিপিইউ কোর রয়েছে। এম১ প্রোতে ১৪-কোর ও ১৬-কোর জিপিইউ এবং এম১ ম্যাক্সে ২৪-কোর ও ৩২-কোর জিপিউ অপশন রয়েছে।

নতুন ম্যাকবুক প্রো তে ১৬জিবি স্ট্যান্ডার্ড র‍্যাম রয়েছে যা এম১ প্রো এর ক্ষেত্রে ৩২জিবি ও এম১ ম্যাক্স এর ক্ষেত্রে ৬৪জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। তবে এম১ প্রোযুক্ত ১৯৯৯ডলার এর বেস মডেলে থাকছে শুধুমাত্র ৮-কোর এর সিপিইউ ও ১৪-কোর জিপিইউ।

বেস মডেলটিতে থাকছে ৬৭ওয়াট পাওয়ায়র এডাপ্টার। ১০-কোর সিপিইউ ও ১৬-কোর জিপিইউ যুক্ত ম্যাকবুক প্রো কিনতে হলে কমপক্ষে গুণতে হবে ২৩০০ ডলার। এম১ প্রো, ১টেরাবাইট এসএসডি ও ৯৬ওয়াট পাওয়ার এডাপ্টারযুক্ত প্রি-বিল্ট ম্যাবুক প্রো পাওয়া যাবে ২৪৯৯ডলারে।

১৪ইঞ্চি ম্যাকবুক প্রো এর পাশাপাশি ১৬ইঞ্চির আরেকটি ম্যাকবুক প্রো লঞ্চ করেছে অ্যাপল। ডিজাইন ও পারফরম্যান্সে উন্নতি চোখে পড়বে ২৪৯৯ ডলার থেকে দাম শুরু হওয়া ১৬ইঞ্চির ম্যাকবুক প্রো তে। ম্যাকবুক এর সর্বোচ্চ স্পেসিফিকেশনযুক্ত ভার্সন এর দাম ৬০০০ ডলার পর্যন্ত যাবে।

এম১ প্রো বা এম১ ম্যাক্স যুক্ত মডেল পাওয়া যাবে ১৬ইঞ্চি (১৬.২ ইঞ্চি) ম্যাকবুক প্রো এর। অ্যাপল এর নতুন ১০-কোর প্রসেসরে থাকছে ৮টি হাই পারফরম্যান্স কোর ও দুইটি হাই এফিসিয়েন্সি কোর। এম১ ম্যাক্স এর ক্ষেত্রে দ্বিগুণ জিপিইউ কোর ও মেমোরি ব্যন্ডউইথ পাওয়া যাবে বলে দাবি অ্যাপলের।

ব্যবহারকারীদের কথা আমলে নিয়ে অবশেষে পোর্টস এর ক্ষেত্রে আপডেট এসেছে নতুন ম্যাকবুক প্রোতে। নতুন ম্যাকবুক মডেলে থান্ডারবোল্ট ৪ পোর্ট রয়েছে, যেখানে আগের মডেলে থান্ডারবোল্ট ৩ পোর্ট ছিলো। এছাড়াও হাই-ফাইডেলিটি স্পিকার সিস্টেম যুক্ত হয়েছে নতুন ম্যাকবুকে। এছাড়াও দেয়া হয়েছে উন্নততর হেডফোন জ্যাক।

২০১৬সালের পর এবার অ্যাপল এর প্রো ল্যাপটপ লাইন-আপের ডিজাইনে এতো বিশাল পরিবর্তন আসলো। সে বছর বাটারফ্লাই কিবোর্ড, টাচ বার, থান্ডারবোল্ট ৩ পোর্ট এর মত নতুন সব ফিচার যুক্ত হয় ম্যাকবুক প্রোতে।

বিগত বছরসমুহে অ্যাপল এর ম্যাকবুক প্রো নিয়ে বিভ্রান্তি ছিলো। অবশেষে অ্যাপল এই সমস্যার সমাধান খুঁজে নিয়েছে বলে মনে হয়। যারা বহনযোগ্য অ্যাপল ল্যাপটপ খুঁজছেন, তারা ১৩ইঞ্চি ম্যাকবুক প্রো বা এয়ার দেখতে পারেন। আর টপ নচ পারফরম্যান্স যদি হয় আসল প্রায়োরিটি, সেক্ষেত্রে ১৪/১৬ইঞ্চি ম্যাকবুক প্রো হবে আদর্শ পছন্দ।

0/পোস্ট এ কমেন্ট/Comments